মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

একটি বাড়ি একটি খামার

একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের উদ্দেশ্য সমূহঃ-

 

১। প্রথম পর্যায়ে প্রতি উপজেলার ৩৬টি গ্রাম হিসেবে মোট ১.৭৩৮৮ গ্রামের দরিদ্র ও অদরিদ্র পরিবারকে অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত করা এবং পর্যায়ক্রমে দেশের সকল (৮৫০০০) গ্রামের ৫১ লক্ষ দরিদ্র/অদরিদ্র (প্রতি গ্রামে ৬০টি) পরিবারসহ সমিতিভূক্ত সকল পরিবারকে গ্রাম সংগঠনের মাধ্যমে প্রতিটি গ্রামকে অর্থনৈতিক কর্মকান্ডের মূল কেন্দ্র হিসেবে তোলা।

২। ২০১৩ সালের মধ্যে প্রকল্পাধীন সকল গ্রামের প্রতিটি পরিবারকে কৃষি, মৎসচাষ, পশুপালন ইত্যাদি কাজের মাধ্যমে একটি কার্যকর ’’খামার বাড়ি’’ হিসেবে গড়ে তোলা।

৩। ২০১১ সালের মধ্যে প্রকল্পাধীন পওতি গ্রাম থেকে ৫ জন কওে (কৃষি, পশুপালন, হাঁস-মুরগী পালন, মৎসচাষ, বৃক্ষ নার্সারী ও হটিকালচার ট্রেডের প্রতি বিষয়ে একজন) মোট ৮৬.৯৪০ জন সদস্যকে জীবিকাভিত্তিক প্রশিক্ষন দিয়ে খামার স্বেচ্ছাসেবী গঠন করা এবং অন্যান্য বিষয়ে গ্রামকর্মী সৃজন করা।

৪। ২০১২ সালের জুনের মধ্যে ঋণ সহায়তার মাধ্যমে নিজ/সদস্যদের নিয়ে প্রতি গ্রামে ৫টি করে বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষিত কর্মীদেও বাড়ীতে মোট ৮৬,৯৪০টি প্রদর্শণী খামার গড়ে তোলা।

৫। বর্ণিত খামার স্বেচ্ছাসেবীদেও সহায়তায় আগামী ২০১৩ সালের মধ্যে সরাসরি উপকারভোগী কমপক্ষে ৯,৫৬,৩৪০ পরিবারসহ অনুরম্নপ খামার বা জীবিকাভিত্তিক কার্যক্রম নিশ্চিত করা।

৬। ২০১৩ সালের মধ্যে অনিবাসী ভূমি মালিকদের ভূমিসহ গ্রামীন সকল সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার ও সম্পত্তির মালিকানা নিশ্চিত করা।

৭। ২০১৩ সারের মধ্যে প্রকল্প থেকে গ্রাম সংগঠনের দরিদ্র/ অতিদরিদ সদস্যদেও মাসিক সঞ্চয়ের বিপরীতে সমপরিমান কন্ট্রিবিউটরি মাইক্রো সেভিংস প্রদানের মাধ্যমে প্রতিটি পরিবারের ব্যক্তি সঞ্চয় বছরে ন্যূনতম ৫,০০০/= টাকার উন্নীত করা যা ২ বছওে ১০ হাজার এবং ৫ বছরে ৪০ হাজার টাকায় উন্নীত হবে।

৮। ব্যক্তি তহবিলে কন্ট্রিবিউটরী অর্থেও অতিরিক্ত প্রতিটি সংগঠনকে বছওে তাদের নিজেস্ব সঞ্চয়ের সমপরিমান প্রকল্প থেকে মূলধন সহায়তার মাধ্যমে দু’বছরে মোট ৯,০০,০০০/= টাকা গ্রাম সংগঠন তহবিল গড়ে তোলা।

৯। প্রধান কৃষি ফসলেরপাশাপাশি আদা, হলুদ, পিয়াঁজ, রসুন, জিরা, মসলা, বিভিন্ন ফল এবং অন্যান্য অপ্রধান কৃষি ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধিতে প্রতিটি বাড়ী সংশিস্নষ্ট জমি ব্যবহার করা।

১০। মাছ চাষের পাশাপাশি গ্রামীন জনগনের মাধ্যমে অন্যান্য aquatic culture কার্যক্রম সম্প্রসারণ।

১১। উপজেলা পর্যায়ে বর্তমান সুবিধা (বিআরডিবি/বিএডিসি’র গোডাউন) ব্যবহার করে একটি করে সমবায়ভিত্তিক বাজার ব্যবস্থাপনা, প্রক্রিয়াজাত করন ও সংরক্ষন (হিমাগারসহ) ব্যবস্থা গড়ে তোলা।

১২। কৃষিজাত পণ্যেও সমবায় ভিত্তিতে মার্কেটিং ও প্রক্রিয়াজাত করার বিষয়ে লাগসই প্রযুক্তি ব্যবহারের কার্যক্রম গ্রহন

করা।

 

গ্রাম নির্বাচনঃ

নীতিমালা মোতাবেক ইউনিয়ন থেকে গ্রাম নির্বাচনের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার-কে সভাপতি কওে নিমণরম্নপ একটি গ্রাম নির্বাচন কমিটি গঠন করা হয়েছেঃ

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা                             -সভাপতি

উপজেলা মুক্তযোদ্ধা কমান্ডার                          -সদস্য

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা                               -সদস্য

উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা                         -সদস্য

উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা                         -সদস্য

উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা                             -সদস্য

উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মমর্তা                          -সদস্য

চেয়ারম্যান,উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি              -সদস্য

সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান                             -সদস্য

পলস্নী দারিদ্র বিমোচন কর্মকর্তা                         -সদস্য

উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা                       


Share with :

Facebook Twitter